1. admin@tbcnews24.com : admin :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

বড়দিনের আগে ওমিক্রনের জেরে বাতিল দু’হাজারের বেশি ফ্লাইট

টিবিসি নিউজ ২৪
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১০৩ বার পঠিত

বড়দিনের উৎসবের এই সময়ে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তারের মধ্যে ভ্রমণ নিয়ে বিপত্তিতে পড়েছেন লাখো মানুষ। শেষ মুহূর্তে এসে বাতিল হয়ে গেছে হাজার হাজার ফ্লাইট। পাশাপাশি ওমিক্রন ঠেকাতে অন্যান্য বিধিনিষেধও কেবলই কঠোর হচ্ছে।

শুক্রবার সকালের মধ্যেই বিশ্বব্যাপী বাতিল হয়েছে ২ হাজারের বেশি ফ্লাইট। এমনটিই দেখা গেছে ফ্লাইট অ্যাওয়ার ওয়েবসাইটে। বড়দিন উদযাপনের এই সময়ে মানুষের জন্য এ এক বড় ধাক্কা, যার জন্য মূলত দায়ী অতি সংক্রামক নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন।

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করোনাভাইরাস শনাক্তদের ৭০ শতাংশের বেশি এখন ওমিক্রন রোগী। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের ডেল্টা এয়ারলাইন্স ৯০ টি ফ্লাইট বাতিল করার কথা জানিয়েছে। একইদিনে দেশটির ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স বাতিল করেছে অন্তত ১৫০ টি ফ্লাইট, যেগুলো বিভিন্ন বিমানবন্দর থেকে শুক্রবার ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল।

শনিবার ছেড়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তত থাকা আরও ৪৪ টি ফ্লাইটও ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স বাতিল করেছে। জেটব্লু, অ্যালেজায়েন্টসহ অন্যান্য এয়ারলাইন্সগুলোও একই পদক্ষেপ নিয়েছে। কেবল আমেরিকান এয়ারলাইন্স শুক্রবার সকালে জানিয়েছে, তারা কোনও ফ্লাইট বাতিল করেনি।

অস্ট্রেলিয়ায় মহামারী শুরুর পর থেকে সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমণ সর্বোচ্চে পৌঁছায় বড় বড় শহর সিডনি এবং মেলবোর্নের বিমানবন্দরের কয়েকডজন ফ্লাইট বাতিল হয়ে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এয়ারলাইন্স বলছে, ফ্লাইট ক্রুরা কোভিড পজিটিভ হওয়া এবং সেলফ-আইসোলেশনে যাওয়ার কারণে ইতোমধ্যেই স্টাফের স্বল্পতা দেখা দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে দৈনিক প্রায় ১৭০,০০০ জনের নতুন কোভিড শনাক্ত হচ্ছে। এ হার গত দু সপ্তাহের চেয়ে ৩৮ শতাংশ বেশি বলে জানিয়েছে নিউ ইয়র্কের করোনাভাইরাস ট্র্যাকার।

অস্ট্রেলিয়ায় ৫০০ জনের ওমিক্রন সংক্রমন রেকর্ড হয়েছে। দেশটির এয়ারলাইন্সের স্টাফদের করোনাভাইরাস পজিটিভ রোগীদের সংস্পর্শে আসার বিষয়টি চিহ্নিত হওয়ার পর তারা আর কাজে যেতে পারছে না বলে জানিয়েছেন এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তারা। সরকারি নিয়মানুযায়ী তাদেরকে ৭ দিনের আইসোলেশনে থাকতে হচ্ছে।

ভাইরাস ছড়াতে থাকায় বিভিন্ন সেক্টরে এভাবে কর্মীর স্বল্পতার কারণে বহু দেশেই পরিষেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স এবং ইতালিতে বৃহস্পতিবার রেকর্ড কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সংক্রমণ ঠেকাতে এসব দেশে নতুন করে স্বাস্থ্যবিধি কঠোর করা হচ্ছে। ইতালি, স্পেন এবং গ্রিস বাড়ির বাইরে গেলে আবারও ফেস মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে। স্পেনে সরকার ২০২০ সালের মতো এ বছর কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের পথে না গেলেও দেশটির উত্তরাঞ্চলে ক্যাতালুনিয়ায় রাতে কারফিউ জারি হয়েছে।

নেদারল্যান্ডস এরই মধ্যে কঠোর লকডাউন আরোপ করেছে। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বড়দিনের আগে ইংল্যান্ডে নতুন কোনও বিধিনিষেধ আরোপের সম্ভাবনা নাকচ করলেও স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এবং নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড সামাজিক মেলামেশায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা