1. admin@tbcnews24.com : admin :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

ফ্যামিলি কার্ডে টিসিবি’র পণ্য! নানান সংকটে পণ্য বিক্রি কার্যক্রম

ডেক্স রিপোর্ট//
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৩০ মার্চ, ২০২২
  • ৬০ বার পঠিত
ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি শুরুর কয়েকদিনের মধ্যেই দেখা দিয়েছে নানান সংকট। অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ নিয়েও। শুধু প্রান্তিক গোষ্ঠির জন্য ভর্তুকি মূল্যে পণ্য বিক্রি করায়, দুর্ভোগ কমেনি মধ্যবিত্ত বড় একটি অংশের। সুবিধভোগীর সংখ্যা আরও বাড়ানোর দাবি সকলের।

সাতক্ষীরা পৌরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডে, ২৬ হাজার মানুষের বিপরীতে ফ্যামিলি কার্ড দেওয়া হয়েছে মাত্র ৪৬টি। এতে চরম জনরোষের মুখে পড়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর শফিক উদ দৌলা সাগর। তিনি বলেন, ‘যদি আমরা ৭০০ বা ৮০০ টিসিবি কার্ড পেতে পারি তাহলে, এই রোজাটা মানুষরা অনেক সুন্দর ভাবে কাটাতে পারবে।’

একই অবস্থা সাতক্ষীরার অন্য এলাকার জনপ্রতিনিধিদেরও। জেলার ৭টি উপজেলা এবং দুটি পৌরসভার ৫ লাখ ১৩ হাজার পরিবারের মধ্যে ফ্যামিলি কার্ড দেওয়া হয়েছে ৭৩ হাজার ৮০০টি। অথচ জেলা পরিসংখ্যান অফিস বলছেন, সাতক্ষীরায় অতিদারিদ্র্যের হার ১২ ভাগ। জনসংখ্যার তুলনায় সীমিত সংখ্যক কার্ড বরাদ্দ দেওয়ায় সাধারণ মানুষ ও জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে চরম অসন্তোষ তৈরি হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ আনিসুর রহিম বলেন, ‘যারা এই কার্ড বিতরণ করেছেন তারা এখন বিপদে আছেন। কেননা সাতক্ষীরা জেলায় ২৪ শতাংশ মানুষ দরিদ্রসীমায় বাস করছে।’

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, সুবিধাভোগীর সংখ্যা আরও বাড়াতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে।

এদিকে, কুড়িগ্রামেও ফ্যামিলি কার্ড দেওয়ার বেলায়ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কোন পরিবারে একাধিক এমনকি কোনো কোনো পরিবারের প্রতিটি সদস্যের নামে কার্ড বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অথচ বাদ পড়েছে নিম্নবিত্ত ও দিনমজুর অনেক পরিবার। জনপ্রতিনিধিরা বলছেন, সরকারি নির্দেশনা মেনেই ফ্যামিলি কার্ড বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, খাগড়াছড়িতে ৮২ হাজার ৬৭০টি ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিবিসি’র পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। জনপ্রতিনিধিরা জানান, কৃষির উপর নির্ভরশীল পাহাড়ী এই জনপদের আরও অনেক মানুষ কার্ড পাওয়ার যোগ্য।

সারা দেশে নিম্ন আয়ের এক কোটি পরিবারের মধ্যে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ঈদের আগে ন্যায্যমূল্যে দুই কিস্তি টিসিবির পণ্য বিক্রি চলছে। প্রতি মাসেই এভাবে টিসিবির পণ্য বিক্রির দাবি জানিয়েছেন সুবিধাভোগীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা