1. admin@tbcnews24.com : admin :
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যৌন হয়রানি:অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

ডেক্স রিপোর্ট:
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৭ জুন, ২০২২
  • ৬৩ বার পঠিত

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের সহড়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষক আবু আফ্ফানের বিরুদ্ধে প্রাথমিক তদন্ত শুরু হয়েছে। রবিবার (২৬ জুন), সকাল ১০ টার দিকে গাংনী উপজেলা প্রাথমিক সহকারি শিক্ষা অফিসার ফয়সাল বিন হাসান সরেজমিনে প্রাথমিক তদন্ত কাজ শুরু করেছেন। সকাল সাড়ে ১১টার দিকে যৌন হয়রানির ঘটনায় ভিকটিম এর বাবা গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার, গাংনী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। তদন্ত অফিসার ফয়সাল বিন হাসান দৈনিক পশ্চিমাঞ্চলকে জানান, ৫ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠে সহড়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আবু আফ্ফানের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছলে মৌখিকভাবে আমাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য নির্দেশ দেন। নির্দেশনা অনুযায়ী উক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং স্থানীয় কিছু মানুষের সাথে কথা বলেছি। তবে ভিকিটিম ও তার পিতার সাথে কথা বলা হয়নি। আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে ভিকটিমের পরিবার ও এলাকার জনগণের সাথে কথা বলে তদন্ত রিপোর্ট পাঠিয়ে দেবো।

এবিষয়ে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী খানমের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, আমি জেলা শিক্ষা অফিসার সূত্রে বিষয়টি জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে শিক্ষা অফিসারের সাথে আলাপে তিনিই ভালো বলতে পারবেন। উল্লেখ্য, সহড়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আবু আফ্ফান গত শনিবার দুপুরের দিকে উক্ত বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ক্লাস চলাকালীন সময়ে যৌন হয়রানি করে। ওই ছাত্রীটি বাড়িতে গিয়ে তার বাবা-মা কে জানালে ছাত্রীটির বাবা স্কুলে আসেন। এসময় শিক্ষক আবু আফ্ফান পালিয়ে যায়। ঘটনায় বিদ্যালয়ে অসংখ্য মানুষের সমাগম হয়। এবং বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। তবে এ বিষয়ে রবিবার দুপুরের দিকে ভিকটিমের বাবার সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, থানায় অভিযোগ দায়ের করলে মানহানি মামলা করবেন বলে বিভিন্ন লোক মারফত অভিযুক্ত শিক্ষক আবু আফ্ফানের পরিবারের পক্ষ থেকে হুমকি প্রদান করা হচ্ছে। হুমকির সত্যতা নিশ্চিতে অভিযুক্ত শিক্ষক আবু আফ্ফানকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কয়েকবার ফোন কল করা হলে তিনার ব্যবহৃত নাম্বারটি ওয়েটিং পাওয়া যায়। উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মন্জুয়ারা খাতুন ভিকটিমের বাসায় এসে বিষয়টি মিমাংসা করে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন বলেও ভিকটিমের বাবা জানান। এবিষয়ে সকালের দিকে গাংনী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভিকটিমের বাবা এ তথ্য নিশ্চিত করেন থানার ডিউটি অফিসার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা